Breaking News
Home / স্থানীয় সংবাদ / বাগেরহাটে সন্ত্রাসী তান্ডবে আ’লীগ নেতাসহ ১০ জন আহত

বাগেরহাটে সন্ত্রাসী তান্ডবে আ’লীগ নেতাসহ ১০ জন আহত

দোকানপাট ভাংচুর, অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

বাগেরহাট প্রতিনিধি
আওয়ামী লীগের শেল্টারে স্ব-ঘোষিত প্রভাবশালি হয়ে আধিপত্য বিস্তারের নামে বাগেরহাট সদর উপজেলার গোটাপাড়া ও বিষ্ণুপুর এলাকায় দফায় দফায় সন্ত্রাসী তান্ডব হয়েছে। এ তান্ডবে বিষ্ণুপুর ইউনিযন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আফজাল হাওলাদারসহ উভয় পক্ষের ১০/১২ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত বিষ্ণুপুর কুলিয়া দাইড় এলাকা হয়ে গোটাপাড়া মুক্ষাইট ও বাবুরহাট এলাকায় কয়েক দফা এ ঘটনা হয়েছে। হামলায় আহত আওয়ামী লীগ নেতা আফজাল হাওলাদার (৫৮), রেজাউল করিম (৫২), কোহিনুর বেগম (৪০), সানি (২২) জাহাঙ্গীর মল্লিক (৫০), আব্দুস সালাম (৪০) স্বপন বিশ^াস (৪৮), মোসলেম কাজী ও কাজী মুঞ্জুরুল করিম (৬০) সহ ১০/১২ জন। এর মধ্যে আফজাল হ্ওালাদার ও মঞ্জুরুল করিমের অবস্থা আশংকাজনক। হামলকারিরা এ সময় মুক্ষাইট মোড় এলাকায় ৫/৬টি দোকান ঘর ভাংচুর করে। খবর পেয়ে বাগেরহাট জেলা সদর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। তবে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। বাগেরহাট-১ আসনের এমপি শেখ হেলাল উদ্দিনের এপিএস ফিরোজুল ইসলামের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রর্ত্যক্ষদর্শীরা জানান। আহত বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন আওয়ামী নেতা আফজাল হাওলাদার জানান, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার সময়ে নির্যাতনের শিকার হয়েছি। নিজ দল সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায়ও আওয়ামী লীগের শেল্টারে থাকা বিএনপি দলীয় সন্ত্রাসীরা আমার রক্ত ঝরালো। এখন যাব কোথায়? এ দিকে তান্ডবে এলাকার আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে হওয়ায় এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা আফজাল হাওলাদার আহত হওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট ভুইয়া হেমায়েত হোসেনের নেতৃত্বে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ একটি টিম শুক্রবার বেলা ১১টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যায় এবং ঘটনা বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে। নেতৃবৃন্দ এর আগে হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আহতদের খোজ খবর নেন বলে জানান জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক আহাদ উদ্দিন হায়দার। বাগেরহাট সদর মডেল থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম শুক্রবার সকালে জানান, দুই গ্রুপের সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ রয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক আছে। আর এ ঘটনায় কোন পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ নিয়ে আসে নাই। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*