Breaking News
Home / জাতীয় সংবাদ / নগরীতে বিএনপি নেতা লিটনের ওপর হামলার ঘটনায় যুবদলের দু’কর্মী গ্রেপ্তার

নগরীতে বিএনপি নেতা লিটনের ওপর হামলার ঘটনায় যুবদলের দু’কর্মী গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টারঃ নগরীর খালিশপুর থানা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি ও আইনজীবী ফজলে হালিম লিটনের ওপর হামলার ঘটনায় পুলিশ দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে। শুক্রবার রাতে খালিশপুর প্লাটিনাম দ্বিতীয় গেট থেকে তাদের আটক করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, নয়াবাটি এলাকার সেলিম সর্দারের ছেলে নাজমুল হোসেন বাবু ও একই এলাকার আ: হাই আকন্দের ছেলে আরিফুর রহমান আরেফিন। গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খালিশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো: কামাল হোসেন খান।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই রফিকুল ইসলাম বলেন, ৮ মে অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা লিটনের ওপর আক্রমণ করে। ১০ মে তিনি খালিশপুর থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। হামলার ব্যাপারে কয়েকজন সন্দেহভাজন ব্যক্তির নাম তিনি তদন্ত কর্মকর্তার নিকট বলেন। সকল তথ্য সংগ্রহ করার পর শুক্রবার রাতে বাবুু ও আরেফিনকে খালিশপুর প্লাটিনাম দ্বিতীয় গেট থেকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হামলার সাথে জড়িত আছে বলে পুলিশের নিকট স্বীকার করেছে। তাদেরকে রিমান্ডের আবেদন করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
খালিশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো: কামাল হোসেন খান বলেন, আইনজীবী ফজলে হালিম লিটনের ওপর হামলার ঘটনায় দু’জনকে আটক করা হয়েছে। তবে তারা কোন দলের সদস্য সে বিষয়ে কোন কিছু জানা যায়নি। তাদের বিরুদ্ধে রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।
খালিশপুর থানা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি ফজলে হালিম লিটন বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের সাথে তার পূর্ব শত্রুতা ছিল। হামলার সময় তারা ছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি কোন উত্তর দেয়নি। তবে গ্রেপ্তার হওয়া ওই দু’জন বিএনপি’র বকুল গ্রুপের সদস্য বলে তিনি আরও জানিয়েছেন। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এদিকে খুলনা মহানগর বিএনপির আহবায়ক এড. শফিকুল আলম মনা শনিবার দুপুর ১২টায় বিএনপি কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, খালিশপুর থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি এ্যাড. ফজলে হালিম লিটনের ওপর হামলার ঘটনা নিয়ে পুলিশ সরকারি দলের এজেন্ডা বাস্তবায়নে মরিয়া হয়ে উঠেছে।
সারাদেশে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা-মামলার প্রতিবাদে নেতা-কর্মীরা যখন রাজপথে সক্রিয় ঠিক সেই মূহুর্তে খুলনার ঐক্যবদ্ধ বিএনপিকে বিভক্ত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত একটি চক্র। আর তদেরই হয়েই পুলিশ প্রশাসনের ভেতর লুকিয়ে থাকা আওয়ামী লীগের এজেন্টরা বিএনপির নেতা-কর্মীদের মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারে মাঠে নেমেছে। যার অংশ হিসেবে খালিশপুর থানা যুবদল নেতা নাজমুল হোসেন বাবু ও আরিফুর রহমান আরিফকে গ্রেপ্তার করেছে। তিনি অবিলম্বে গ্রেপ্তার যুবদলের এই দুই নেতার নি:শর্ত মুক্তির দাবি জানান। প্রেসব্রিফিং এ উপস্থিত ছিলেন, মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন, জেলা সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পি, স.ম. আব্দুর রহমান, আজিজুল হাসান দুলু, শের আলম সান্টু, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, একরামুল হক হেলাল, চৌধুরী হাসানুর রশিদ মিরাজ, শাহিনুল ইসলাম পাখি, নিঘাত সীমা প্রমূখ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*