Breaking News
Home / স্থানীয় সংবাদ / দুই বছরের অধিক সময় পর আবার চালু হচ্ছে বন্ধন এক্সপ্রেস

দুই বছরের অধিক সময় পর আবার চালু হচ্ছে বন্ধন এক্সপ্রেস

খুলনা-কলকাতা রুটে চলাচল শুরু কাল

স্টাফ রিপোর্টারঃ খুলনা-কলকাতা রুটে দুই বছরের অধিক সময় পর আবার চালু করা হচ্ছে আন্তর্জাতিকমানের বন্ধন এক্সপ্রেস। করোনা সংক্রমণের সময় বন্ধ হয়ে যাওয়া এই বন্ধন এক্সপ্রেসটি করোনা সংক্রমণ হ্রাস পাওয়ায় ২৯ মে রবিবার থেকে আবারও চলাচল শুরু করবে। ইতোমধ্যে খুলনা আধুনিক রেল স্টেশন থেকেও বন্ধনের টিকিট বিক্রি শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর কলকাতা-খুলনার মধ্যে ৪৫৬ আসনের ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ নামের আন্তর্জাতিক ট্রেনটি চলাচল শুরু করে। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই ট্রেনের কেবিনে সিট ভাড়া দেড় হাজার ও চেয়ার কোচ ভাড়া এক হাজার টাকা। এর সঙ্গে ৫০০ টাকা ভ্রমণ কর যোগ করা হয়। বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বেনাপোলে বন্ধন এক্সপ্রেসের যাত্রীদের পাসপোর্ট, ভিসাসহ ইমিগ্রেশনের যাবতীয় কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়। এরপর যাত্রীরা সরাসরি খুলনা ও কলকাতার মধ্যে যাতায়াত করতে পারেন। বাংলাদেশ থেকে রবিবার ও বৃহস্পতিবার এই দুই দিন এক্সপ্রেসটি ছেড়ে যায়। ভারত থেকে আসেও দুই দিন। সপ্তাহের প্রতি রবিবার ও বৃহস্পতিবার সকালে ট্রেনটি কলকাতা থেকে ছেড়ে আবার বিকালে খুলনা থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে ফিরে যায়। কিন্তু বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির মধ্যে ২০২০ সালের ১৫ মার্চ থেকে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে চলাচলকারী আন্তঃদেশীয় ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। করোনার সংক্রমণ কিছু কমলে দেশের ভেতরে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হলেও আন্তঃদেশীয় ট্রেন চলাচল বন্ধই ছিল। বর্তমানে করোনা সংক্রমণ অনেকটা হ্রাস পাওয়ায় ২৯ মে রবিবার থেকে আবারও চলাচল শুরু করবে ট্রেনটি। বন্ধন এক্সপ্রেসের ৪৫৬ আসনের মধ্যে ৩১২টি এসি চেয়ার ও ১৪৪টি প্রথম শ্রেণির আসন রয়েছে। খুলনা-কলকাতার রেল পথের মধ্যে দূরত্ব ১৭২ কিলোমিটার। এর মধ্যে বাংলাদেশে পড়েছে ৯৫ কিলোমিটার ও ভারতে পড়েছে ৭৭ কিলোমিটার।
সরেজমিন খুলনা আধুনিক রেল স্টেশনের একটি কাউন্টার থেকে বন্ধন এক্সপ্রেসের টিকিট বিক্রি করতে দেখা যায়। অনেক যাত্রী টিকিট কিনছেনও।
বন্ধন এক্সপ্রেসের একজন টিকিট ক্রেতা অশোক রায় বলেন, অন্যান্য মাধ্যমের থেকে টাকা একটু বেশি গেলেও বন্ধন এক্সপ্রেসে ঝামেলা কম পোহাতে হয়। অনেকদিন পর আবার ট্রেনে ভারত যাওয়ার জন্য টিকিট কাটলাম।
ট্রেনে কলকাতা যাওয়ার জন্য অপর এক যাত্রী রেখা রানী বলেন, ট্রেনে যাতায়াত করা সুবিধাজনক। খুলনা থেকে একেবারে কলকাতা গিয়ে নামা যায়। অন্যভাবে গেলে বর্ডারে অনেক সময় নষ্ট হয়।
খুলনা আধুনিক রেল স্টেশনের মাস্টার মানিক চন্দ্র সরকার বলেন, বন্ধন এক্সপ্রেস ২৯ তারিখ সকালে কলকাতা থেকে যাত্রা শুরু করে দুপুর সাড়ে ১২টায় খুলনা পৌঁছাবে আর দুপুর দেড়টায় খুলনা থেকে আবার কলকাতার উদ্দেশ্যে ট্রেনটি ছেড়ে যাবে। কেবিন প্রতি ভাড়া দুই হাজার পঞ্চান্ন টাকা আর চেয়ার প্রতি ১,৫৩৫ টাকা নেওয়া হচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*